joyeeta benefits - ই-জয়িতা

জয়িতা সুবিধা সমূহ

• ক্রেতা ও বিক্রেতার পেমেন্ট সুরক্ষা নিশ্চিত করতে প্লাটফর্মে যুক্ত করা হয়েছে ESCROW সার্ভিস
• সর্বত্র পণ্য ডেলিভারি ব্যবস্থা
• ক্রেতা বিক্রেতার ভিডিও কলের সুবিধা
• প্রতিবন্ধী সম্প্রদায়ের নারী উদ্যোক্তা
• প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর নারী উদ্যোক্তা
• ব্যাংক এবং এমএফএস যেমন রকেট বিকাশে লেনদেনর সুবিধা
• জয়িতা POS সিস্টেম সুবিধা
• জয়িতা অফলাইন থেকে অনলাইনের সুবিধা
• আর্থিক প্রণোদনার ব্যবস্থা
• জয়িতা টাওয়ারের সুবিধা

ই-জয়িতার আরো কিছু ফিচারঃ

ক্রেতা এবং বিক্রেতার মধ্যে শক্তিশালী সংযোগ, ডিজিটাল পেমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে আর্থিক অন্তর্ভুক্তি, উদ্যোক্তাদের অনুপ্রাণিত করার জন্য ই-জয়ীতা তাদের বিনা মূল্যে পণ্য প্রদর্শনের সুযোগ দেবে, প্ল্যাটফর্মের শীর্ষ বিক্রেতারা টপ কন্ট্রিবিউটর কর্নার এ স্বীকৃত হবে। আমরা অন্যদের অনুপ্রাণিত করার জন্য তাদের গল্প প্রদর্শন করব

• জয়িতা ফাউন্ডেশনের আওতায় কর্মরত তৃণমূল পর্যায়ের নারী উদ্যোক্তা/ নারী উদ্যোক্তা সমিতিসমূহের ব্যবসা অনুকূল প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা বৃদ্ধি করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।

• সকল প্রয়োজনীয় সহায়তা সেবা প্রদান ও ব্যবসা অনুকূল পরিবেশ সৃজনসহ নারীবান্ধব ভৌত বাজার কাঠামো গড়ে তোলা জয়িতার একটি কার্যক্রম, যা নারী উদ্যোক্তাদের জন্য অপরিহার্য।

• বহুমূখী ব্যবসা উদ্যোগের জন্য নারীদেরকে সক্ষম ও দক্ষ করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে নানাবিধ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

• জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বিনির্মাণ প্রকল্পের আওতায় নারী উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

নারী উদ্যোক্তাদেরকে প্রশিক্ষিত ও দক্ষ উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এর ঢাকার লালমাটিয়াস্থ উপ-পরিচালকের কার্যালয়ের ২য় তলার একটি অংশে জয়িতা ডিজাইন সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। এখানে দক্ষ প্রশিক্ষক দ্বারা নারী উদ্যোক্তাদের ডিজাইন সংক্রান্ত নানাবিধ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

করোনার মহামারীতে ক্ষতিগ্রস্ত উদ্যোক্তাদের বেশির ভাগই পুঁজিশূন্য হয়ে পড়েছে। তাদের নতুনভাবে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ক্ষুদ্র ঋণ প্রদানের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

সরকার পল্লী এলাকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে কুটির, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতকে লক্ষ্য করে ঋণদান কার্যক্রম সম্প্রসারণের জন্য ১৫০০ (পনের শত) কোটি টাকার নতুন প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করে। উক্ত প্যাকেজের আওতায় জয়িতা ফাউন্ডেশনের জন্য মোট ৫০ (পঞ্চাশ) কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়। উক্ত ঋণ বিতরণের লক্ষ্যে অংশীদার ব্যাংকের সাথে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে এবং তারা চুক্তি অনুযায়ী ঋণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেছে।

দেশের নারীসমাজকে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা উদ্যোগে সম্পৃক্ত হয়ে নারীদের সম্মানজনক জীবিকায়নের প্রয়োজনীয় সমর্থন ও সহযোগিতা করার জন্য জয়িতা কাজ করে যাচ্ছে।
• বর্তমানে সরকার ‘জয়িতা টাওয়ার নির্মাণ প্রকল্পের’ মাধ্যমে জয়িতা টাওয়ার নির্মাণের পদক্ষেপ নিয়েছে এবং এ উদ্দেশ্যে ঢাকার ধানমন্ডিস্থ রোড নং ২৭ এ প্রায় ১ বিঘা (১৯.৯০ কাঠা) ভূমি অধিগ্রহণ করেছে। সে ভূমিতে বার তলা বিশিষ্ট জয়িতা টাওয়ার নির্মাণ করা হবে।
• জয়িতা ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম সম্প্রসারণের জন্য দেশের প্রতিটি বিভাগীয় সদরে ঢাকার অনুরূপ জয়িতা টাওয়ার নির্মাণ করা হবে।

Main Menu